Home » জাতীয় » সালমান শাহকে খুন করা হয়েছে
manobkantha.com_-85

সালমান শাহকে খুন করা হয়েছে

দেশের চলচ্চিত্র ইতিহাসের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ও সুদর্শন অভিনেতা সালমান শাহ। ১৯৯২ সালে সোহানুর রহমান সোহানের হাত ধরে ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্র জগতে পদার্পণ করেন এই নায়ক। প্রথম ছবিতেই বাজিমাত করেন তিনি। তারপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। পরের চার বছরে তার অভিনীত প্রায় প্রতিটি ছবিই ছিল সুপারহিট। বাংলা চলচ্চিত্রের দর্শকরাও তাকে গ্রহণ করেছিলেন ‘সেলুলয়েডের দেবতা’ হিসেবে। তবে ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে তার জীবন খুব বেশি দিন স্থায়ী হয়নি। জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা অবস্থায় ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রহস্যজনকভাবে মৃত্যুবরণ করেন সালমান শাহ। সে সময় ধারণা করা হয়েছিল তিনি আত্মহত্যা করেছেন। কিন্তু সালমানের পরিবারের দাবি ছিল, পরিকল্পিতভাবে খুন হয়েছেন তাদের সন্তান।

সালমান শাহর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে মামলা করেছিলেন তার মা নীলা চৌধুরী। খুনের বিচার চেয়ে রাস্তায় নেমেছিলেন সালমান ভক্তরাও। কিন্তু ২১ বছর চেষ্টা করেও এই রহস্যের জাল ছিঁড়তে পারেননি গোয়েন্দারা। এতদিন পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে এসে নতুন তথ্য দিয়েছেন রাবেয়া সুলতানা রুবি নামের এক প্রবাসী বাংলাদেশি। একটি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে তিনি দাবি করেছেন, সালমান শাহকে খুন করা হয়েছে। সেই খুনের সঙ্গে জড়িত ছিলেন তারই স্বামী চ্যাং লিং চ্যাং এবং ভাই রুমি। এমনকি এই খুনে সালমান শাহের স্ত্রী সামিরার পরিবারও জড়িত ছিলেন বলে দাবি করেন তিনি।

তথ্যসমৃদ্ধ ওই ভিডিওটি নিয়ে শুরু হয়েছে নানা আলোচনা। এই ভিডিওটি প্রকাশের পর ইতিমধ্যেই নড়েচড়ে বসেছে মামলার তদন্ত সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনস (পিবিআই)। যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী রাবেয়া সুলতানা রুবির সঙ্গে যোগাযোগেরও চেষ্টা করছে তারা। আর এই ভিডিও বার্তার উত্তরে সালমান শাহর মা নীলা চৌধুরী বলেন, প্রিয়জন, খেয়াল রাখবেন এই নিউজের পর অনেকে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করার চেষ্টা করবে। শান্তভাবে কাজ করবে।’ এরপর তিনি সালমানের স্ত্রী সামিরা ও তার পরিবার যেন দেশ থেকে পালিয়ে যেতে না পারে সেদিকেও নজর দিতে অনুরোধ করেন।

ভিডিও বার্তাটি প্রকাশ পাওয়ায় সালমান শাহ হত্যা মামলাটি নতুন মোড় পাবে বলে মনে করেন পিবিআইয়ের বিশেষ পুলিশ সুপার (এসএস) আবুল কালাম আজাদ। দৈনিক মানবকণ্ঠকে তিনি বলেন, ‘সম্প্র্রতি ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওটি আমাদেরও নজরে এসেছে। রুবির সঙ্গে আমরাও যোগাযোগের চেষ্টা করছি। কিন্তু তিনি দেশে নেই। এ কারণে তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হচ্ছে না। তবে তিনি যে বিষয়টি উপস্থাপন করেছেন তা বিবেচনায় নিয়ে তদন্ত করে দেখা হবে।’

এদিকে সালমান শাহ ‘হত্যাকাণ্ডে’ স্বামী চ্যাং লিং চ্যাং ও ভাই রুমি জড়িত ছিলেন এমন দাবি তোলার পরই ব্যাপকভাবে আলোচিত হচ্ছেন রাবেয়া সুলতানা রুবি। মানবকণ্ঠের অধিকতর তদন্তে জানা গেছে তিনি নিজেও সালমান শাহ হত্যা মামলার সাত নম্বর আসামি। একদা তিনি সালমান শাহর বিউটিশিয়ান ছিলেন বলেও জানা গেছে।

রাবেয়া সুলতানা ওরফে রুবি থাকতেন সালমানের ফ্ল্যাটে অর্থাৎ ইস্কাটন প্লাজার উত্তর পাশের ভবনে। তিনি রাজনীতিবিদ, সাবেক মন্ত্রী আব্দুর রশিদের মেয়ে। প্রয়াত ক্যাপ্টেন জামিল ছিলেন তার স্বামী। জিয়াউর রহমান মারা যাওয়ার পর যে ১৩ জন সেনা কর্মকর্তাকে ফাঁসির কাষ্ঠে ঝোলানো হয় তার স্বামী ছিলেন তাদের একজন। ক্যাপ্টেন জামিলের সংসারে জš§ নেয়া পুত্র ভিকিকে নিয়ে ৩১ বছর আগে তিনি চ্যাং লিং চ্যাংকে বিয়ে করেন। সালমানের মৃত্যুর বেশ কয়েক বছর পর তিনি আমেরিকায় পাড়ি দেন। সেখানেই স্বামী-সন্তান নিয়ে বাস করছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

kader sir 3

‘বিএনপির সঙ্গে সংলাপের সুযোগ নেই’

Sharing is caring!FacebookTwitterGoogle+Pinterestআওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি ...